পারুল ভাবী কে রফিক ...
 
Notifications
Clear all

পারুল ভাবী কে রফিক ও মেম্বার এক সাথে চোদল  

  RSS
 Anonymous
(@Anonymous)
Guest

পারুল ভাবীর ভাসুর রফিক ও তার বন্ধু মম্বার ঘরে ঢুকেছে, আমি আলমিরার পিছনে লুকিয়ে গেলাম,আমার তাদের কর্মকান্ড দেখার কোন ইচ্ছা ছিলনা, বরং বাধ্য হয়ে দেখতে হচ্ছে, আলমিরার আর বেড়ার দুরত্ব এত কম যে আমি ঠিক মট দাড়াতে পারছিলাম না। মশার কামড়ে হাত পা ও নাড়াতে পারছিনা,পাছে তারা দেখতে পেলে আমার খবর হয়ে যাবে।তবুও আমি তাদেরকে পুরোপুরি দেখতে পাচ্ছিলাম কিন্তু তারা আমাকে মোটেও দেখতে পাচ্ছেনা।রফিক ও তার সঙ্গী আসল,পারুল একটা মোড়া এগিয়ে দিল, দুজন মানুষকে একটি মোড়া দেয়াতে মেম্বার বারন্দায় গিয়ে অপেক্ষা করতে লাগল,মেম্বার বারান্দায় যাওয়ার সাথে সাথে রফিক মোটেও দেরী করলনা, পারুলের বিশাল দুধে একটা খামচি মেরে দিল,পারুল খামচি বাচাতে না পারলে ও পিছনে সরে গিয়ে বলল, মেম্বার দেখে ফেলবে আপনি একি করছেন, রফিক বলল, আজকে মেম্বারকে দিয়ে তোমাকে চোদাব, আর এতে তোমার ও তথনের জন্য বেশ ভাল হবে, পারুল বলল, আমি ভাল চাইনা আমি মেম্বারকে দিয়ে চোদাতে চাইনা।তুমি না চাইলে না চাও, আমাকে ত চোদতে দিবে, পারুল চুপ মেরে রইল কিছুই বলল না,পারুলের চোদন খেলায় কোন আগ্রহ নেই কারন এমাত্র চোদন খাওয়া পারুল আবার চোদন খেতে পারবে কিনা অথবা আবার চোদনে লিপ্ত হলে তথন এসে যায় কিনা সংশয়ে আছে।কিছুক্ষন আগে চোদনের কথা রফিক জানেনা, আর তথন যে আজকের জুয়া খেলা থেকে সারা আসবেনা সে ব্যাপারে পুর্ন আশ্বাস দিয়েছে পারুল কে। পারুল খাটের এক পাশে দাড়ানো রফিল আবার এগিয়ে গেল,পারুল জানে যে সে বাচতে পারবে না তাি পালাতে চেষ্টা ও করলনা, রফিক আস্তে করে তার দুধের উপর হাত দিল,কাপড়ের উপর দিয়েই টিপতে লাগল,পারু পালং এর কোনা ধরে রফিক কে পিছ দিয়ে দাড়ানো, রফিক পারুলের পিঠকে জড়ীয়ে ধরে বোগলের তল দিয়ে হাত দিয়ে দু হাতে দুই দুধ টিপতে ও কচলাতে লাগল, হয়ত এমাত্র চোদন খাওয়া পারুলের তেমন ভাল লাগছিল না, সে মুখকে পেরেশান করে রেখেছে, রফিকের তাতে কিছু আসে যায়না সে মাল আউট করে দিতে পারলে হবে।কাপড়ের উপর দিয়ে অনেক্ষন টিপার পর শরীর থেকে ব্লাউজ খুলে ফেলল,পিছ দেয়া পারুল কে ঘুরিয়ে দিয়ে নিজের দিকে ফিরায়ে বাম হাতে একটা দুধ টিপে টিপে আরেকটা চোষা আরম্ভ করল, পারুলের একটু একটু ভাল লাগছিল, পারুল চোখ বুঝে মুখকে বাকিয়ে মাথাকে উপর দিকে করে রেখেছে ডান হাত দিয়ে তার ভাসুর রফিক কে জড়িয়ে ধরেছে আর বাম হাত দিয়ে তার দুধের সাথে রফিকের মাথাকে চেপে ধরেছে।এবার রফিক পারুল কে আড়াআড়ী করে জড়িয়ে ধরল, ডান হাত পারুলের ডান দুধ ধরে কামচাচ্ছে মুখ দিয়ে বাম দুধ চোষন করছে আরা বাম হাত দিয়ে পারুলের সোনার ভিতর মাঝের আঙ্গুল দিয়ে আঙ্গুল চোদা করছে,পারুল নতুন ভাবে আবার জেগে উঠেছে,সে সুখে আহ ইহ করতে লাগল, এদিকে বারান্দার পাটিশনের ফাক দিয়ে মেম্বার সব দেখে যাচ্ছে আরা তার বাড়ার উপর আস্তে হাত চালাচ্ছে।রফিক কিছুক্ষন দুধ সোনা খামচিয়ে পারুল কে বলল, আমি তোমার দুচোখ বেধে দিই তাহলে আজকের চোদনে আলাদা ধরনের মজা পাবে, পারল তাতে রাজি হল, রফিক পারলের চোখ বেধে ফেলল এবং আবার আগের মত দুধ চোষা শুরু করল, এ ফাকে মেম্বার এসে পারুলের সামনে দাড়াল,দুজন পুরুষের চোদন খাবে খাবে কিন্তু তা বুঝতে ও পারবেনা।

Quote
Posted : 09/07/2011 8:19 pm
 Anonymous
(@Anonymous)
Guest

রফিক আস্তে করে পারুলের সোনার দিকে সরে আসল,মেম্বার পারুলের দুধ টিপছে আর রফিক পারুলের সোনা চোষে দিচ্ছে পারুল বুজতে ও পারছনা এখানে দুজন লোক তার শরীর নিয়ে ঘাটাগাটি করছে,পারল আরামে উহ ইহ ইস করচে মাঝে মাঝে সোনাকে কোমর বাকিয়ে রফিকের মুখের ডিকে ঠেলে ঠলে দিচ্ছে,আবার বুককে স্ফীত করে দুধ গুলোকে ও নাচিয়ে নাচিয়ে টিপ্পনি খাওয়ার আরাম সংগ্রহ করছে,এভাবে অতি সন্তর্পনে মেম্বার সোনায় আসল আর রফিক দুধ গেল অনুরুপ ভাবে মেম্বার চোষে গেল রফিক দিধ টিপে গেল,পারুলের অবস্থা কাহিল,সে শরীর বাকাচ্ছে আর গোঙ্গাচ্ছে আর মাগো মরে যাচ্ছিগো আমার মাল বের হওয়ার সময় এসে গেচে গো বলে চিতকার করছে,এবার মেম্বার পারুলের দুপাকে উচু করে ধরল, তার বিশাল বাড়াটাকে পারুলের সোনার মুখে বসিয়ে জোরে এক ধাক্কা দিল, পারুলে কোন কষ্ট ছাড়াই পুরো বাড়া সোনার ভিতর ঢুকে গেল,রফিক এবার পারুলের চোখ খুলে দিল, পারুল মেম্বারকে বুকের উপর বুক লাগিয়ে সোনায় ঠাপাতে দেখে অবাক হলেও মজা অনুভব করল।পারুল মেম্বারের দিকে তাকিয়ে আবার চোখ বুঝে নিল,রফিক তার বাড়াকে পারুলের মুখে ঢুকিয়ে দিল, পারুল রফিকের বাড়া চোষছে আর সোনার ভিতর মেম্বার ঠাপ মারছে, কিনাই মজা পাচ্ছেরে পারুল আজ!মেম্বার ঠাপ বন্ধ করে পারলের মুখে তার বাড়া দিল আর রফিক উঠে এসে সোনায় বাড়া ঢুকিয়ে ঠাপাতে লাগল, পালাক্রমে ঠাপ মারতে মারতে মেম্বারের ঠপানির সময় পারুল বেকে উঠে তার মাল ছেড়ে দিয়ে নেতিয়ে গেল, কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে মেম্বার ইহ করে উঠে পারুলকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরে একটা প্রচন্ড ঝাকানি পারুলের সোনার ভিতর গরম গরম বীর্য চেরে দিয়ে পারুলের বুকের কাত হয়ে পরে গেল, রফিক মেম্বারকে পরে থাকতে দিলন তুলে দিয়ে নিথর পারুলে সোনার ভিতর তার বাড়া পচাত করে ঢুকিয়ে ঠাপাতে লাগল কয়েক ঠাপের পর গলগল করে মাল ছেরে দিয়ে রফিক ও নেটিয়ে পরল। রফিক ও মেম্বার পারুলকে কিছু না বলে সুর সুর করে বেরিয়ে গেল, আমি আলমিরার পিছন হতে বের হলাম, পারুল কে দুই দুধের গোড়া ধরে টেনে তুললাম,শেষবারের মত আমিও আবার পারুলের সোনার ভিতর পচ পচ কিছুক্ষন ঠাপ মারলাম আবার মালখসিয়ে পারুল ভাবীকে আবার চোদতে আসব বলে বিদায় নিলাম। আবার গিয়েছলাম সেটা অন্যদিন।

ReplyQuote
Posted : 09/07/2011 8:19 pm